1. dipanchalbarguna@gmail.com : dipanchalAd :
পাথরঘাটায় বিএনপি নেতাদের তাণ্ডবে মুক্তিযোদ্ধা পরিবার এবং ইউপি চেয়ারম্যান আহত - dipanchalnews
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:৩০ পূর্বাহ্ন
শীর্ষ সংবাদ :
বরগুনা পৌর পান-সুপারী ব্যবসায় সমবায় সমিতি লিঃ এর কার্যনির্বাহী কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত বরগুনায় মহিলা পরিষদের উদ্যোগে নারী নির্যাতন প্রতিরোধপক্ষ ২০২২ অনুষ্ঠিত মানবতার আরেক নাম নব-গঠিত বরগুনা পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগ মানবতার আরেক নাম নব-গঠিত বরগুনা পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগ “ধ্রুবতারা” বরগুনা জেলা কমিটির সভাপতি সুমন সিকদার, সম্পাদক অর্পিতা বরগুনায় শ্রমিকলীগের উদ্যোগে বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক মন্টু এর ২য় মৃত্যু বার্ষিকী পালিত জেলা আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদককে শ্রমিক লীগের শুভেচ্ছা জেলা আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত সভাপতিকে শ্রমিক লীগের শুভেচ্ছা প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ শ্রমিক লীগের উদ্যোগে বরগুনায় জেল হত্যা দিবস পালিত

পাথরঘাটায় বিএনপি নেতাদের তাণ্ডবে মুক্তিযোদ্ধা পরিবার এবং ইউপি চেয়ারম্যান আহত

  • আপলোডের সময় : রবিবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১৬০ বার নিউজটি দেখা হয়েছে

শামীম আহমদ পাথরঘাটা থেকে : বরগুনা জেলার পাথরঘাটা উপজেলায় বিএনপি- আওয়ামী লীগের সমাবেশকে কেন্দ্র করে দুইগ্রুপের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটছে। ৪ সেপ্টেম্বর পাথরঘাটা মঠবারিয়া সংযোগ সড়ক সিএন্ডবি এলাকায় এই সংঘর্ষে রায়হানপুর ইউনিয়নের বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ মজিবুর রহমান কনকের ভাতিজা মোঃ রাসেল ভাসানী প্রতিপক্ষ বিএনপি কর্মীদের আঘাতে ব্যপকভাবে আহত হয়েছে।

২০২৩ সালের সংসদ নির্বাচনকে টার্গেট করে বরগুনা ২ আসনে রাজনৈতিক দখলদারিত্ব নিয়ে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটছে। এই আসনের সাবেক সংসদ সদস্য নুরুল ইসলাম মনি ৫ সেপ্টেম্বর বিকেলে পাথরঘাটা উপজেলায় বিএনপির ডাকা প্রতিবাদ সভায় অংশ নেয়ার কথা ছিলো। তার অংশগ্রহণের খবরে বিএনপির স্থানীয় নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যপকভাবে উৎসাহ ছড়িয়ে পরেছিলো। সাবেক সাংসদ নুরুল ইসলাম মনি একদিন আগেই ৪ সেপ্টেম্বর ঢাকা থেকে পাথরঘাটার উদ্দেশ্য রওনা দিয়ে সড়কপথে আসছিলেন। পাথরঘাটা উপজেলার সীমানায় পৌঁছানো মাত্রই বিকেল ৪টার দিকে দুই গ্রুপের মধ্যে মুখোমুখি হলে সংঘর্ষ বেঁধে যায়।

সংঘর্ষের ঘটনাস্থলের ইউনিয়ন রায়হানপুরের আওয়ামী যুবলীগের ৭নং ওয়ার্ড সভাপতি আবু হানিফ পহলান সাক্ষাৎকার দিয়ে জানিয়েছেন বিএনপি একটি সন্ত্রাসী সংগঠন। কানাডার আদালত বলছে বিএনপি কোন রাজনৈতিক দলের নয়। আমরা পাথরঘাটার মুক্তি যোদ্ধাদের সন্তানেরা সেই সন্ত্রাসী সংগঠনের কোন নেতাকে পাথরঘাটায় প্রবেশ করতে দিতে পারি না। একই ওয়ার্ডের নেতা মনিরুজ্জামান মনির ভাসানী বলছেন আমাদের শেষ রক্ত বিন্দু দিয়ে হলেও বিএনপি জামাত শিবির জঙ্গি সংগঠনের কোন নেতাকে পাথরঘাটায় কখনও কোন সমাবেশ করতে দেয়া হবে না। কারন তাদের সমাবেশ কখনই শান্তিপূর্ন হয় না। তারা সমাবেশের নামে এলাকায় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডকে উৎসাহিত করে। তবে শান্তি পূর্ণ যেকোনো রাজনৈতিক সমাবেশকে আমরা স্বাগত জানাই। রাজনীতিতে প্রতিপক্ষ মোকাবিলা করে আমাদের দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে আবারও রাষ্ট্র ক্ষমতায় আসবে।

পাথরঘাটায় নুরুল ইসলাম মনির প্রবেশ ঠেকাতে বাঁধা দেয় কাকচিড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন পল্টু। পল্টু তার দলের নেতাকর্মীদের নিয়ে নুরুল ইসলাম মনির প্রবেশ সড়ক বন্ধ করে দেয়। তখনই পূর্বপ্রস্তুতি নেয়া বিএনপি নেতা কর্মীরা আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীদের ওপর লাঠিসোটা নিয়ে ঝাঁপিয়ে পরে। বিএনপির এক কর্মী লাঠি দিয়ে সর্বপ্রথম আঘাত করে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান পল্টুর মাথায়। তাৎক্ষণিক জ্ঞান হারিয়ে যায় ওই চেয়ারম্যানের। সেসময় আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকর্মী তাদের মোটরসাইকেল রেখে দৌড়ে সড়কের পাশে জলাশয় পরে যায়। তখন বিএনপির কর্মীরা সড়কে পরে থাকা শত-শত মোটরসাইকেল পিটিয়ে ভেঙে আগুন ধরিয়ে দেয়।

ঘটনার আধাঘন্টার মধ্যেই পাথরঘাটা শহর আওয়ামী লীগ এবং উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের নেতাকর্মী ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায়। তখনই বিএনপি নেতাকর্মী পিছু হাটতে শুরু করে। বিএনপির নেতাকর্মীদের একটি অংশ তাদের নেতা নুরুল ইসলাম মনিকে ঘিরে রেখে সুরক্ষা দেয়। আধাঘন্টা ধরে চলতে থাকা সংঘর্ষে থামিয়ে দেয় স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন। এরপরেই ১৬ বছর পরে নিজ এলাকায় আসা সাংসদ নজরুল ইসলাম মনি ঢাকায় ফিরে যেতে বাধ্য হয়। বন্ধ হয়ে যায় পাথরঘাটায় ডাকা প্রতিবাদ সমাবেশ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুণ :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর :
© All rights reserved © 2020 The Daily Dipanchal
Customized By BlogTheme