1. dipanchalbarguna@gmail.com : dipanchalAd :
স্বামী হারানোর ১১দিনের মাথায় ৫পুত্র হারিয়ে প্রায় উন্মাদ মানু বালা - dipanchalnews
বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:১১ অপরাহ্ন
শীর্ষ সংবাদ :
বরগুনা পৌর পান-সুপারী ব্যবসায় সমবায় সমিতি লিঃ এর কার্যনির্বাহী কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত বরগুনায় মহিলা পরিষদের উদ্যোগে নারী নির্যাতন প্রতিরোধপক্ষ ২০২২ অনুষ্ঠিত মানবতার আরেক নাম নব-গঠিত বরগুনা পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগ মানবতার আরেক নাম নব-গঠিত বরগুনা পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগ “ধ্রুবতারা” বরগুনা জেলা কমিটির সভাপতি সুমন সিকদার, সম্পাদক অর্পিতা বরগুনায় শ্রমিকলীগের উদ্যোগে বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক মন্টু এর ২য় মৃত্যু বার্ষিকী পালিত জেলা আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদককে শ্রমিক লীগের শুভেচ্ছা জেলা আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত সভাপতিকে শ্রমিক লীগের শুভেচ্ছা প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ শ্রমিক লীগের উদ্যোগে বরগুনায় জেল হত্যা দিবস পালিত

স্বামী হারানোর ১১দিনের মাথায় ৫পুত্র হারিয়ে প্রায় উন্মাদ মানু বালা

  • আপলোডের সময় : বুধবার, ৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
  • ৮৯ বার নিউজটি দেখা হয়েছে

কক্সবাজার ॥ স্বামী হারানোর ১১দিনের মাথায় ৫পুত্রকে হারিয়ে মা মানু বালা প্রায় উন্মাদ হয়ে পড়েছেন। এই অসহায় মা’কে শান্তনা দিতে পারছেনা কেউ। আবার একই পরিবারের ৭ সদস্যকে গাড়ি চাপায় হতাহতের ঘটনায় তদন্তের দাবি উঠেছে বিভিন্ন মহল থেকে। এই দুর্ঘটনাকে জমিজমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে পূর্ব পরিকল্পিত বলেও দাবি অনেকের।

জানা যায়, গত ২৮-জানুয়ারি বার্ধক্যজনিত কারণে মৃত্যু হয় মানু বালার স্বামী সুরেশ চন্দ্র শীলের। সনাতন ধর্মের নিয়ম অনুযায়ী তাহার সৎকার করা হয়। মঙ্গলবার ভোরে কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে বসে সৎকার পরবর্তী কিছু কাজ সম্পন্ন করছিলেন আট ভাইবোন। তারপর রাস্তা পার হচ্ছিলেন তারা। ঠিক তখনই তাদের চাপা দেয় একটি গাড়ি। ঘটনাস্থলেই প্রাণ যায় চার ভাইয়ের। ডুলাহাজারা খ্রিষ্টান হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান আরও এক ভাই। মঙ্গলবার ভোরে কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে চট্টগ্রামগামী একটি পিকআপ চাপা দিয়ে একইসঙ্গে মানু বালার পাঁচ পুত্রের মর্মান্তিক মৃত্যু ঘটানো হয়েছে। পিকআপভ্যান তাদের চাপা দিয়ে পালিয়ে গেছে। হাইওয়ে পুলিশ অবশ্য ওই পিকআপটি জব্দ করেছে।

মানু বালা মাত্র ১১-দিন আগে হারিয়েছেন স্বামীকে। বাবাকে হারিয়ে শোকে কাতর তার ছয় ছেলে ও দুই মেয়ে মায়ের চোখের জল মুছে দেন। এ অবস্থায় একসঙ্গে পাঁচ সন্তানের লাশ দেখে পাথর হয়ে গেছেন মা মানু বালা শীল। স্বামীর শ্রাদ্ধ হওয়ার দিনে একইসঙ্গে পাঁচ ছেলেকে হারিয়ে এখন শোকে প্রায় পাগল মানু বালা। আবুলতাবুল কথা ও অস্বাভাবিক আচরণ করছেন তিনি। মানু বালার হুঁশ ফেরাতে পারছে না কেউ। ষাট বছর বয়সের মানু বালা শীল ডুলাহাজরার বাসিন্দা। মালুমঘাট খ্রিষ্টান হাসপাতালের উত্তরে রিংভং হাসিনাপাড়ায় বনবিভাগের পরিত্যক্ত একখন্ড জমিতে তাদের।

পিকআপ চাপায় নিহত অনুপম শীলের স্ত্রী পপিশীল বলেন, আমার শ্বশুরের শ্রাদ্ধ হওয়ার লক্ষ্যে সবকিছু প্রস্তুত। খাবারের ব্যবস্থা, প্যান্ডেল ও অতিথি নিমন্ত্রণ থেকে শুরু করে সব কাজ হয়ে গেছে। কিন্তু সেই শ্রাদ্ধের আগে সবকিছু শেষ হয়ে গেলো। এক সঙ্গে পাঁচ ভাইয়ের মৃত্যুর খবর পেয়ে মানু বালার বাড়িতে ছুটে যান চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেপি দেওয়ান ও ডুলাহাজারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাসানুল ইসলাম আদর।

এদিকে ডুলাহাজারায় গাড়ি চাপায় ৫ সহোদরের প্রাণ হারানোর ঘটনা নিয়ে নতুন করে সমালোচনা তৈরি হয়েছে। নিহতের নিকটাত্মীরা এমন অভিযোগ তুলেছেন। তারা জানায়, নিহতদের বাবা সুরেশ চন্দ্র সুশীল গত ১০ দিন আগে পরলোকগমন করেন। এ কারণে সনাতন ধর্মমতে, ক্ষৌরকর্ম করতে সুরেশের সন্তানরা মন্দিরে গিয়েছিলেন। ক্ষৌরকর্ম শেষে মন্দির থেকে বাড়ি ফেরার পথে এ ঘটনা ঘটে। সুরেশ চন্দ্র সুশীল চকরিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য পরিদর্শক ছিলেন। তার ৮ ছেলে ২ মেয়ে। বড় ছেলে হিরন সুশীল দুই বছর আগে স্ট্রোকে মারা যান। বাকি সাত ভাইদের মধ্যে বড় অনুপম শীল প্যারামেডিক চিকিৎসক। চকরিয়ায় তার একটি ওষুধের ফার্মেসিও রয়েছে। আরেক ভাই নিরুপম সুশীলেরও চকরিয়ায় ফার্মেসি রয়েছে। দীপক সুশীল ওমানে ও চম্পক এবং স্মরণ দুইজন ব্যবসা করতেন।

স্থানীয় কয়েকজনের সঙ্গে জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধ ছিল। তাদের বাবা মারা যাবার সপ্তাহখানেক আগে স্থানীয় মোহাম্মদ এমরানের নেতৃত্বে ৩০-৪০ জনের মতো বখাটে তাদের বাড়িতে হামলা চালিয়েছিল। তারা বৃদ্ধ সুরেশ চন্দ্র সুশীলকে টানাহেঁচড়াও করেছে। হামলাকারীরা তাদের উপসনাস্থল ভেঙেছে, বাড়িঘর ভাঙচুর করেছে। মূলত বাড়ি নির্মাণের জন্য পরিবার ইট এনেছিল সুশীলের পুত্র চম্পক। রাস্তা দিয়ে ইট বহন নিয়ে প্রতিপক্ষের সঙ্গে বাকবিতণ্ডা হয়।

চকরিয়া থানার ওসি মোহাম্মদ ওসমান গণি বলেন, সড়কে গাড়ি চাপায় ৫ সহোদর মারা গেছে। গাড়ির চালক পলাতক থাকায় আমরা চালককে চিহ্নিত করার চেষ্টা করছি। সকাল থেকে জমিজমা সংক্রান্ত কোন ঘটনা শুনিনি। তারপরও কেউ বিষয়টি লিখিতভাবে জানালে খতিয়ে দেখা হবে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুণ :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর :
© All rights reserved © 2020 The Daily Dipanchal
Customized By BlogTheme