1. dipanchalbarguna@gmail.com : dipanchalAd :
পাগলি মা হয়েছে, দুঃখের বিষয় বাবা হয়নি কেউ! - dipanchalnews
শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ০১:১৯ পূর্বাহ্ন
শীর্ষ সংবাদ :
দক্ষিণাঞ্চলের স্বপ্নের দুয়ার খুলছে আজ হাইকোর্টে দুই মামলায় খালেদা জিয়ার স্থায়ী জামিন টাঙ্গাইলে নানা কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উদযাপিত- বরগুনায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে হজ্জ বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত মঠবাড়িয়ায় হাত-পা বেঁধে ৫ম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টা, বৃদ্ধ গ্রেপ্তার টাংগাইলে জাতীয় শিশু কিশোর ইসলামী সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান- বরগুনায় ইসলামি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দুঃস্থদের মাঝে সরকারি যাকাত ফান্ডের চেক বিতরণ জেলায় শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ নির্বাচিত মাওঃ মুহাম্মদ ইউনুস আলী বরগুনায় কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত “প্রত্যাবর্তনের চার দশক,শেখ হাসিনার বদলে দেওয়া বাংলাদেশের,অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রা”

পাগলি মা হয়েছে, দুঃখের বিষয় বাবা হয়নি কেউ!

  • আপলোডের সময় : মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই, ২০২১
  • ৭৭ বার নিউজটি দেখা হয়েছে

ঢাকা অফিস : নাম-পরিচয়হীন এক পাগলি মা হয়েছেন কিশোরগঞ্জে। কিন্তু সন্তানের বাবার পরিচয় শনাক্ত হয়নি। খবর শুনে অনেকেই দেখতে এসেছেন মা ও বাচ্চা শিশুকে। অসহায় পাগলি আর তার ফুটফুটে শিশু সন্তানের মায়াবী মুখ দেখে সবাই আবেগে আপ্লুত। কিন্তু পাগলির মতো তার সন্তানের বাবার পরিচয় সম্পর্কে কারও জানা নেই কিছু । কারণ, ধরা খাওয়ার ভয়ে বাবা এখন আর সামনে আসবে না। সোমবার সকাল ৭টার দিকে কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর উপজেলার রামপুর বাজার এলাকায় ছেলে সন্তান জন্ম দেন ওই পাগলি।

খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রাবেয়া পারভেজ ছুটে যান ঘটনাস্থলে। পরম মমতায় শিশুটিকে কোলে তুলে নেন তিনি। এসময় এক আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়। তিনি পাগলি মা ও শিশুটিকে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রাবেয়া পারভেজ জানান, পাগলির বাচ্চার পিতৃ পরিচয় সম্পর্কে এখনো কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। তিনি বাচ্চাটিকে খাওয়াতেও চাচ্ছেন না। অনেক বুঝিয়ে বাচ্চাকে খাওয়ানোর জন্য রাজি করানো হয়েছে। চিকিৎসা চলছে। তিনি আরও জানান, শিশুটিকে কেউ দত্তক নিতে চাইলে আইনগতভাবে বিষয়টি দেখা হবে। তাছাড়া সমাজ সেবার মাধ্যমেও তার ব্যাপারে করণীয় ভাবা হচ্ছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ১০/১২ দিন আগে উপজেলার রামপুর বাজারে এক পাগলি নারী আসেন। সন্তানসম্ভবা ওই পাগলি নারী কারও সাথে বেশি কথা বলেন না। কেউ কিছু খেতে দিলে খান। তবে জোর করে কারো খাবার খান না তিনি। সোমবার সকাল ৭টার দিকে ওই পাগলির প্রসব বেদনা দেখা দিলে রামপুর বাজারের পাশের আমির উদ্দিনের মেয়ে জেসমিন ও সাবিনা তাদের বাড়িতে নিয়ে সন্তান প্রসব করার কাজে সহযোগিতা করেন। সেখানে ওই পাগলি নারী ছেলে সন্তানের জন্ম দেন। এদিকে, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. নাছিরুজ্জামান সেলিম জানান, হাসপাতালের একটি রুমে মা ও শিশুটিকে রাখা হয়েছে। সার্বক্ষণিক চিকিৎসক ও নার্স তাদের সেবায় নিয়োজিত আছেন। বাচ্চা ও তার মা বর্তমানে সুস্থ ও ভালো আছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুণ :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর :
© All rights reserved © 2020 The Daily Dipanchal
Customized By BlogTheme