1. dipanchalbarguna@gmail.com : dipanchalAd :
তালতলীতে ব্রিজের প্রবেশের পথে গাছ ঝুঁকি নিয়ে চলাচল - dipanchalnews
রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৩:১৯ অপরাহ্ন

তালতলীতে ব্রিজের প্রবেশের পথে গাছ ঝুঁকি নিয়ে চলাচল

  • আপলোডের সময় : রবিবার, ৪ জুলাই, ২০২১
  • ১০৬ বার নিউজটি দেখা হয়েছে

তালতলী প্রতিনিধি : বরগুনার তালতলী উপজেলার কড়ইবাড়িয়া ইউনিয়নের শানুর বাজার চৌরাস্তা সংলগ্নে ব্রিজের প্রবেশের পথে গাছ ও উপরে তক্তা দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করে বাজারের বিভিন্ন স্থরের মানুষ। প্রায় দুই গ্রামের ৬থেকে৭ হাজার মানুষের চলাচলের একমাত্র ভরসা। সরেজমিনে দেখা গেছে,ব্রিজের সিমেন্টের ঢালাই যে জায়গায় নেই সেখানে তক্তা বিছিয়ে রেখেছে স্থানীয়রা। ব্রিজের এক পাশসহ মাঝে মাঝে ধেবে গেছে। ওই ব্রিজ দিয়ে শানুর বাজার চৌরাস্তা হয়ে উপজেলা শহরে আসতে হয়। যাতায়াতের বিকল্প কোনো পদ্ধতি নেই।ব্রিজে তক্তা বিছিয়ে পারাপার করছে।দূর্ঘটনা এড়াতে ব্রিজে উঠার আগে গাছ দিয়ে রাখা হয়েছে। প্রবেশের পথে গাছ দেওয়ায় কোনো যানবাহন চলতে পারে না।

উপজেলা এলজিইডি সূত্রে জানা গেছে,ব্রিজটি বেহালা খালের উপর নির্মিত। ব্রিজের ১৫০মিটার দৈর্ঘ্য সহ প্রস্থ ৫.৬ পয়েন্ট রয়েছে।বর্তমানে ব্রিজটি বেশ ঝুঁকিপূর্ণ রয়েছে। অনেক দিন আগে ঢেন্ডার হয়েছে। টেন্ডার হয়েই সীমাবদ্ধতা রেখেছে। এখন পর্যন্ত কোনো কার্যকর হয়নি।এতে যেকোনো মুহুর্তে দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভবনা রয়েছে। স্থানীয়রা জানান, দুই গ্রামের মানুষ এই ব্রিজটার উপর নির্ভরশীল। ব্রিজ পার হয়েই রয়েছে বেহালা মাধ্যমিক বিদ্যালয়,বেহালা আদর্শ প্রাথমিক বিদ্যালয়,উত্তর বেহালা প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রতিদিন ছাত্র-ছাত্রীরা যাতায়াত করে।সপ্তাহে একদিন বাজার বসে তখন ওই ব্রিজ দিয়ে বিভিন্ন মালামাল নিয়ে যানবাহন চলাচল করে। হয়। সেতুটি এমন বেহাল দশার কারণে স্থানীয় কৃষকরা সময়মত তাদের উৎপাদিত পণ্য বাজারে উঠাতে পারে না। বিকল্প পথে ঘুরে তারপর উপজেলায় আসতে হয়। ব্রিজটি দীর্ঘদিন ধরে একই অবস্থায় পড়ে রয়েছে।স্থানীয়রা দাবি করে ব্রিজটি দ্রুত সংস্কারের জন্য। বেহালা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো.মাসুম বিল্লাহ বলেন,ব্রিজটি সংস্কার করা খুবই জরুরী হয়ে পড়েছে।স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীসহ বাজারে প্রতিদিন লোকের সমাগম হয় এই ব্রিজ দিয়ে তাদের যাতায়াত চলে।

উপজেলা প্রকৌশলী মো.আহম্মেদ আলী বলেন , সরেজমিন পরিদর্শন করে ব্রিজের সয়েল তপোগ্রাফি সার্ভে প্রেরণ করা হয়েছে। এলজিডির আওতাধীন আইবিআরপি প্রকল্পের ইতিমধ্যে গার্ডার ব্রিজ নির্মানের জন্য স্টেটমেন্ট দেওয়া হয়েছে। মাননীয় সংসদ সদস্য ও উপজেলার চেয়ারম্যান মহাদয় ডিওলেটার প্রেরণ করা হয়েছে। চেয়ারম্যান বারবার তাগিদ দেওয়া স্বত্বে অদ্যবধি কোনো অনুমোদন আসে নি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুণ :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর :
© All rights reserved © 2020 The Daily Dipanchal
Customized By BlogTheme