1. dipanchalbarguna@gmail.com : dipanchalAd :
বরগুনায় সরকারি বিদ‍্যালয়ের জমি দখল করে ব‍্যাক্তিগত ভবন নির্মাণের অভিযোগ! - dipanchalnews
সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ০৬:৪৯ অপরাহ্ন

বরগুনায় সরকারি বিদ‍্যালয়ের জমি দখল করে ব‍্যাক্তিগত ভবন নির্মাণের অভিযোগ!

  • আপলোডের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৫ অক্টোবর, ২০২০
  • ৩৮১ বার নিউজটি দেখা হয়েছে

মো: সাগর আকন, বরগুনা: বরগুনা সদর উপজেলাধীন ০২নং গৌরিচন্না ইউনিয়নের দক্ষিণ খাজুরতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ের জমি দখল করে প্রভাবশালী অধির চক্রবর্তী নামের এক ব্যক্তি উক্ত বিদ‍্যালয়ের পুরাতন স্কুল ভবনটিতে অবৈধভাবে বহুতল ভবন নির্মাণের অভিযোগ করেছে এলাকাবাসী।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, দক্ষিণ খাজুরতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ের পুরাতন স্কুল ভবনটিতে অবৈধভাবে বহুতল ভবনের নির্মাণকাজ চলছে। স্থানীয় বাসিন্দরা জানান, ঐ এলাকার বাসিন্দা বিদ‍্যালয়ের সাবেক সভাপতি অধির চক্রবর্তী পিতা: মৃত. রজনিকান্ত চক্রবর্তী টাকার জোরে এ কাজ করছেন। এবং স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ১৫/০৯/২০২০ তারিখে এলাকাবাসীর পক্ষে বিদ্যালয়ের নিজস্ব জমিতে ব্যক্তিবিশেষ কিছু প্রভাবশালী উক্ত বিদ্যালয়ের জমি দখলে নেয় এবং বিদ্যালয়ের পুরাতন স্কুল ভবনটিতে অবৈধভাবে স্থাপনা তৈরীর কার্যক্রম শুরু করে এতে এলাকাবাসীর মধ্যে চাপা ক্ষোভ ও অসন্তোষ সৃষ্টি হয়েছে মর্মে দীপক কুমার মিত্র সহ ১০১ জন এলাকাবাসীর স্বাক্ষরিত একটি লিখিত অভিযোগ বরগুনা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে দাখিল করা হয়।

জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, এক পরিপত্রে গত ২৭ শে সেপ্টেম্বর ২০২০ তারিখ শিক্ষা ও কল্যাণ শাখা থেকে সরকারি সম্পদ রক্ষার্থে বিদ‍্যালয়ের দলিল মোতাবেক জমির পরিমাণ যথাযথ রয়েছে কিনা তা সরেজমিনের পরিদর্শনপূর্বক মতামত সহ আগামী ১৫/১০/২০২০ তারিখের মধ‍্যে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে প্রতিবেদনের দেয়ার কথা আছে।

অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে সাবেক সভাপতি অধির চক্রবর্তী বলেন, ‘অন্য কারও জমিতে নয়, নিজের জমিতে ভবন তৈরি করছি এবং প্রধান শিক্ষিকা রুমনা আক্তার কাজল সার্ভেয়ার দিয়ে জমি মেপে দিয়েছে তিনি আরো বলেন আমার কাছে আদালতের রায়ের কপি আছে।

এ ব‍্যাপারে ঐ বিদ‍্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা রুমনা আক্তার কাজল মুঠোফোনে বলেন আমি ওনাকে আমার স্বামীর মাধ‍্যমে সার্ভেয়ার দিয়ে জমি মাপ বুঝিয়ে দিয়েছি। তিনি আরো বলেন এটা নিয়ে ঐ এলাকার কিছু লোক জটিলতা সৃষ্টি করতেছে।

এবং অভিযোগের ব্যাপারে বরগুনা জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন আমি কি বলবো আমার মিডিয়ায় কোন কথা বলার অনুমতি নাই।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুণ :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর :
© All rights reserved © 2020 The Daily Dipanchal
Customized By BlogTheme