1. dipanchalbarguna@gmail.com : dipanchalAd :
বেতাগীতে যত্রতত্র গড়ে উঠেছে লাইসেন্সবিহীন অবৈধ ওয়েল্ডিং কারখানা ।। জনস্বাস্থ্য হুমকিতে - dipanchalnews
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১:৫২ অপরাহ্ন

বেতাগীতে যত্রতত্র গড়ে উঠেছে লাইসেন্সবিহীন অবৈধ ওয়েল্ডিং কারখানা ।। জনস্বাস্থ্য হুমকিতে

  • আপলোডের সময় : সোমবার, ১৩ জুলাই, ২০২০
  • ২৪৭ বার নিউজটি দেখা হয়েছে

স্বপন কুমার ঢালী, বেতাগী : বরগুনার বেতাগীতে যত্রতত্র সড়কগুলোর দুই পাশে গড়ে উঠেছে ওয়েল্ডিং কািরখানা। পরিবেশ আইন না মেনে এসব কারখানার প্রভাবে চোখে আলোক রশ্মি প্রবেশ করে রেটিনা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। যত্রতত্র কারখানা গড়ে ওঠায় ঝালাইকালে তীর্যক অতিবেগুনী রশ্মির বিচ্ছুরণ ও উচ্চ শব্দ ছড়িয়ে পড়ায় বিপদগামী হচ্ছে কোমলমতি শিশু, স্কুল কলেজগামী ছাত্রছাত্রী,পথচারী, বিশেষ করে গর্ভবর্তী নারী ও বয়স্করা। ফলে পরিবেশের উপর পড়েছে বিরুপ প্রভাব এবং জনস্বাস্থ্য হয়ে উঠেছে হুমকীর সম্মূখীন।

গত কয়েকদিন ধরে উপজেলার ১টি প্রথম শ্রেণির পৌরসভাসহ ও ৭টি ইউনিয়নের বিভিন্ন হাট বাজারগুলো সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেল, বিবিচিনি বাসস্ট্যান্ড, দেশান্তরকাঠী, ফুলতলা, পুটিয়াখালী, ঝোপখালী, বেতাগী পৌরসভার বাসস্ট্যান্ড ও বাজার সড়কের দু পাশে, হাসপাতাল সড়ক, বেলি ব্রিজ বাজার, বাসন্ডা পুলেরহাট, জলিসা বাজার, বটতলা, মোকামিয়া বাজার, মোকামিয়া মাদরাসা বাজার, কাজিরহাট, কাউনিয়া, বদনীখালী, কুমড়াখালী, মায়ার হাট, চান্দখালী বাজারসহ এসব ছোট বড় ২০টি হাট বাজারের দু ‘পাশে শতাধিক যত্রতত্র ওয়েল্ডিং কারখানা গড়ে উঠেছে। এসব কারখানায় সাড়ে ৩ শতাধিক শিশু ও যুবক শ্রমিক প্রতিনিয়ত কাজে সম্পৃক্ত রয়েছে। এসব কারখানায় খোলা স্থানে সড়কের পাশে জনসম্মূখে দিনে রাতে চলছে ওয়েল্ডিংয়ের কাজ।

এছাড়া প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে সড়কের দু‘পাশ দখল করে বাস এবং ট্রাকের জোড়াতালি ও ওয়েল্ডিং,গাড়ির পার্টস কাটা ছেঁড়া ও জোড়া লাগানোর কাজ ও ঝালাই দেওয়া, পুরোনো আনফিট গাড়ি জোড়াতালি দেওয়া, ঝালাই দেওয়া ও রং করা ইত্যাদি। সড়কের দু‘পাশে গড়ে উঠা এসব দোকানের বাক্স, দরজা ও জানালার গ্রীল, লোহার রড ইত্যাদি ফুটপাত দখল করে রাখায় পথচারীদের মারাত্মকভাবে বিঘ্ন ঘটছে। আবাসিক এলাকার প্রধান সড়কগুলোর দু‘পাশে খোলামেলাভাবে ওয়েল্ডিংয়ের কাজ করায় বিপর্যয়ের মধ্যে পড়েছে পুরো সংশ্লিষ্ট এলাকাবাসী। এতে করে পরিবেশ বিপর্যয়ের পাশাপাশি পথচারী চলাচলে চরম দুভোর্গ পোহাতে হচ্ছে। বেতাগী সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী

তন্বী আক্তারের বাবা মন্টু মিয়া বলেন,‘ প্রশাসন সচেতন হলে কারখানার মালিকরা এ ধরণের কাজ করতে পারে না , আমরা চাই প্রশাসনের মাধ্যমে ফুটপাত দখলমুক্ত করা হোক।’ পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. মিজানুর রহমান বলেন,‘ রাস্তার পাশে ওয়েল্ডিং কারখানার আসবাবপত্র না রেখে কাজ করার জন্য নিদের্শ দিয়েছি, আইন না মানলে বা খামখেয়েলীপনা করলে প্রশাসসের মাধ্যমে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

বিভিন্নস্থানে দেখা গেছে, খোলা জায়গায় ওয়েল্ডিংয়ের কাজ করায় পথচারীরা যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে তেমনি পাশাপাশি স্কুলগামী শিশু
শিক্ষার্থীরা কৌতুহলবশতঃ ওয়েল্ডিংয়ের কাজ দেখায় চোখের রেটিনা ও লেন্সে ক্ষতি ডেকে আনছে। ওয়েল্ডিং কারখানার সাথে সম্পৃক্ত যুবক ও শিশু শ্রমিকরা চোখে কালো গ্লাস ব্যবহার করছে না। ওয়েল্ডিংয়ের কাজের সময় তীব্র তীর্যক আলোর বিচ্ছুরণের ফলে অতিবেগুনী রশ্মি যাতে বাহিরে যেতে না পারে এজন্য ঘরের ভিতর আড়াল করে এবং কালো কাপড় দিয়ে ঢেকে কাজ করার নিয়ম রয়েছে। কিন্তু এখানকার শ্রমিকরা এসব নিয়ম মানছে না।

সামান্য সংখ্যক এ কারখানাগুলোতে পরিবেশে অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ও ব্যবসায়িক কাজের জন্য কোন লাইসেন্স থাকলেও অধিকাংশতেই নেই কোন ছাড়পত্র ও লাইসেন্স। প্রশাসনের যথাযথ তদারকি না থাকার কারণে কারখানার সাথে জড়িতরা পরিবেশের ছাড়পত্র ও লাইসেন্স নিতে আগ্রহ হারাচ্ছে।

এ কাজের সাথে সম্পৃক্ত বেতাগী বাসস্ট্যান্ডের ওয়েল্ডিংব্যবসায়ী আব্দুল হালিম বলেন,‘ খোলাভাবে কাজ করলে চোখের ক্ষতি এটা আমরা বুঝি কিন্তু কেউ কালো কাপড় ব্যবহার করছে না তাই আমিও খুলে রেখেছি।’

এ ব্যাপারে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মো. রাজীব আহসান বলেন,‘ আমি ইতোমধ্যে ওয়েল্ডিং কারখানার এ সকল অভিযোগ পেয়েছি এবং অতিশীঘ্রই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে আইনগত যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুণ :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর :
© All rights reserved © 2020 The Daily Dipanchal
Customized By BlogTheme