1. dipanchalbarguna@gmail.com : dipanchalAd :
পাথরঘাটা পৌর সভায় রাস্তা নির্মানে অনিয়ম ।। কাউন্সিলরসহ ১১জনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা - dipanchalnews
সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ০৭:১৮ অপরাহ্ন

পাথরঘাটা পৌর সভায় রাস্তা নির্মানে অনিয়ম ।। কাউন্সিলরসহ ১১জনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা

  • আপলোডের সময় : বৃহস্পতিবার, ৯ জুলাই, ২০২০
  • ২৩৩ বার নিউজটি দেখা হয়েছে

দ্বীপাঞ্চল প্রতিবেদক : বরগুনার পাথরঘাটা পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের একটি রাস্তা নির্মানকে কেন্দ্র করে ঠিকাদার ও কাউন্সিলরের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়েছে। এক পর্যায়ে সেখানে উভয়ে লাঞ্চিত হয়। এ ঘটনায় ঠিকাদার জিয়াউর রহমান শাহীন ৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তারিকুল ইসলাম লিটনসহ ১১জনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি মামলা দায়ের করেছেন। স্থানীয়দের দাবি, রাস্তা নির্মাণকাজে অনিয়মের আশ্রয় নিচ্ছিল। এর প্রতিবাদ করায় কাউন্সিলর লিটনের উপর ঠিকাদার চড়াও হলে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও ওই এলাকার বাসিন্দা তাসলিমা বেগম বলেন, গত ১ জুলাই শুক্রবার কাজটি শুরু করে। নিম্নমানের কাজ করায় ওই এলাকার লোকজন ওয়ার্ড কাউন্সিলর তারিকুল ইসলাম লিটনের কাছে আপত্তি তোলেন। কাউন্সিলর লিটন রাস্তার কাজ পরিদর্শন করে ঠিকাদারকে ডেকে কাজ প্রাক্কলন অনুসারে করার জন্য অনুরোধ জানান। এসময় ঠিকাদার শাহীন তেলেবেগুনে জ্বলে ওঠেন ও কাউন্সিলরকে বলেন, “তুই বলার কে, তোরে জবাবদিহি করতে হবে”। এ নিয়ে উভয়ের বচসার এক পর্যায়ে ঠিকাদার শাহীন কাউন্সিলর লিটনকে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দেন। এসময় স্থানীয়রা লিটনকে মাটি থেকে তুলে উদ্ধারের চেষ্টা করলে ঠিকাদার ও শ্রমিকরা ফের কাউন্সিলরকে মারতে কোদাল নিয়ে তেড়ে আসলে প্রতিরোধ গড়ে তোলে এলাকাবাসী। একপর্যায়ে কাউন্সিলর লিটন এলাকার লোকজনকে নিবৃত্ত করলে ঠিকাদার শাহিন ঘটনা স্থল ত্যাগ করে। এ ঘটনার পর ওই ঠিকাদার পাথরঘাটা থানায় কাউন্সিলরসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে ৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবীর অভিযোগ এনে মামলা করেন। মামলায় তিনি অভিযোগ করেন, সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড কাউন্সিলর লিটনের এলাকায় কেউ কাজ করতে গেলেই তাকে চাঁদা দিতে হবে। একইভাবে সে শেয়ারে কাজের পার্টনার হতে চেয়েছিল। তাকে শেয়ারে না নেয়ায় ঠিকাদার শাহীনের কাছা ৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করেন। চাঁদা না দিয়ে কাজ করতে গেলে কাজে বাঁধা দেয় এ সময় তার সাথে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। মামলার পর ঠিকাদার শাহীন গতকাল মঙ্গলবার পাথরঘাটা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনেও কাউন্সিলর লিটনের বিরুদ্ধে একই অভিযোগ আনেন। মঙ্গলবার সরেজমিনে পরিদর্শনে গেলে ওই রাস্তাটির ভেতর থেকে মাটি কেটে পাইলিং দিতে দেখা যায়। পৌরশহরের খাদ্যগুদাম সড়ক ধরে উত্তর দিকে ডকইয়ার্ড এলাকায় বাঁধের বাইরের বাসিন্দাদের জন্য একটি প্রকল্পের আওতায় রাস্তা নির্মাণের কাজ চলছে। সরলজমিনে নির্মাণাধীন ওই রাস্তার ভেতর থেকে মাটি কেটে উভয়পাশে পাইলিং দিচ্ছেন ঠিকাদার। অথচ, প্রাক্কলনে অন্য কোথাও থেকে মাটি এনে পাইলিং দেয়ার জন্য বরাদ্দ রয়েছে। এ নিয়েই মূলত স্থানীয়রা আপত্তি তোলায় এ ঘটনা ঘটে। রাস্তার সুবিধাভোগী কয়েকটি পরিবারের বাসিন্দারা বলেন, দীর্ঘবছর ধরে একটি রাস্তার জন্য তারা চরম ভোগান্তির শিকার। সম্প্রতি পৌরসভার ৫৫ লাখ টাকার একটি প্রকল্পে রাস্তাটি অন্তর্ভুক্ত করা হয়। এতে আশার আলোর সঞ্চার হয় ওই এলাকার বাসিন্দাদের মনে। অনেক কষ্টের পর পাওয়া রাস্তার কাজ ঠিকমত করে কিনা ঠিকাদার সেদিকে নজরদারি ছিল সবারই। ঠিকাদার ঠিকমত কাজ না করায় সমস্যার সৃষ্টি হয়। ঠিকাদার চড়াও হয়ে কাউন্সিলরকে প্রথমে আঘাত করে উল্টো চাঁদাবাজির মামলা দিয়ে হয়রাণি করেছেন বলে অভিযোগ করেন অনেকেই।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুণ :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর :
© All rights reserved © 2020 The Daily Dipanchal
Customized By BlogTheme