1. dipanchalbarguna@gmail.com : dipanchalAd :
ছয় বছরেও ইনলেটের কপাট খুলেনি ।। ভোগান্তিতে আমতলীর দুই হাজার কৃষক - dipanchalnews
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:৫৪ অপরাহ্ন

ছয় বছরেও ইনলেটের কপাট খুলেনি ।। ভোগান্তিতে আমতলীর দুই হাজার কৃষক

  • আপলোডের সময় : বৃহস্পতিবার, ৯ জুলাই, ২০২০
  • ১৬৭ বার নিউজটি দেখা হয়েছে

আমতলী প্রতিনিধি : আমতলী উপজেলার কুকুয়া ইউনিয়নের চুনাখালী বাজারের বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধের ইনলেটের কপাট ছয় বছর ধরে বন্ধ রয়েছে। এতে ওই ইনলেটটি কোন কাজে আসছে না এলাকার মানুষের। ভোগান্তিতে রয়েছে ওই এলাকার দুই হাজার কৃষক। দ্রুত ইনলেটের কপাট খুলে দেওয়ার দাবী জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

জানাগেছে, ২০১৪ সালে পানি উন্নয়ন বোর্ড উপজেলার কুকুয়া ইউনিয়নের চুনাখালী বাজারের বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধে ইনলেট নিমার্ণ করে। নিমার্ণ কাজ শেষ হয়ে গেলেও ওই ইনলেটের কপাট খোলার হ্যান্ডেল দিয়ে যায়নি ঠিকাদার। নিমার্ণের ছয় বছর ধরেই ওই ইনলেটের কপাট বন্ধ রয়েছে। স্থানীয়রা বহু চেষ্টা করেও কপাট খুলতে পারেনি। কপাট খুলতে না পারায় গত ছয় বছরে ওই ইনলেট দিয়ে পানি নিস্কাশন বন্ধ রয়েছে। এতে ভোগান্তিতে পরেছে ওই এলাকার দুই হাজার কৃষক। পানি নিস্কাশন বন্ধ থাকায় এলাকায় দেখা দিয়েছে জলাবদ্ধতা।

পানি নিস্কাশন বন্ধ থাকায় কৃষকরা উপযুক্ত সময়ে জমি চাষাবাদ করতে পারছে না। দ্রুত ইনলেটের কপাট খুলে দেওয়ার দাবী জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

কৃষক সুলতান মিয়া বলেন, ইনলেটের হ্যান্ডেল না থাকায় ছয় বছর ধরে কপাট বন্ধ রয়েছে। এক দিনের জন্যও কপাট খুলেনি। ইনলেট বন্ধ থাকার পানি নিস্কাশন হচ্ছে না। এতে ভোগান্তিতে রয়েছে এলাকার অন্তত দুই হাজার কৃষক। দ্রুত ইনলেটের কপাট খুলে দেওয়ার দাবী জানাই।

স্থানীয় সেকান্দার আলী মিয়া বলেন,ইনলেটের কপাট বন্ধ থাকায় এটি এলাকার মানুষের কোন কাজে আসছে না। পানি নিস্কাশন বন্ধ থাকায় উপরন্ত কৃষকের ক্ষতি হচ্ছে।

বরগুনা পানি উন্নয়ন বোর্ডের সহকারী প্রকৌশলী মোঃ আজিজুর রহমান স্বপন বলেন, এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুণ :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর :
© All rights reserved © 2020 The Daily Dipanchal
Customized By BlogTheme