1. dipanchalbarguna@gmail.com : dipanchalAd :
আমতলী-তালতলীতে ৮ জন করোনায় আক্রান্ত বাড়ী লকডাউন, এলাকায় আতঙ্ক - dipanchalnews
সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ০৫:২৭ অপরাহ্ন

আমতলী-তালতলীতে ৮ জন করোনায় আক্রান্ত বাড়ী লকডাউন, এলাকায় আতঙ্ক

  • আপলোডের সময় : রবিবার, ২৮ জুন, ২০২০
  • ২২০ বার নিউজটি দেখা হয়েছে

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি: বরগুনার আমতলী-তালতলী উপজেলার এক ইউপি চেয়ারম্যান, সাংবাদিক, টেকনেশিয়ান, স্বাস্থ্যকর্মী ও ব্যবসায়ীসহ আট জন প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এক দিনে আটজন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় এলাকার মানুষের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে। উপজেলা প্রশাসন আক্রান্তদের বাড়ী লকডাউন করে দিয়েছেন। এনিয়ে আমতলীতে ৩৪ ও তালতলীতে ১২ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সুত্রে জানাগেছে, গত বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার আমতলী ও তালতলী উপজেলার করোনা ভাইরাসের উপসর্গকৃত ১০ জনের নমুনা সংগ্রহ করে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। ওই নমুনা উপজেলা স্বাস্থ্যবিভাগ বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাব (করোনা ল্যাব) পাঠিয়ে দেয়। শনিবার রাতে তাদের প্রতিবেদন আমতলী উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসে। ওই প্রতিবেদনে উল্লেখ আছে আমতলী ও তালতলী উপজেলার এক ইউপি চেয়ারম্যান, সাংবাদিক, স্বাস্থ্যকর্মী, টেকনেশিয়ান ও ব্যবসায়ীসহ আটজন প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তের মধ্যে ছয়জন আমতলী পৌরসভা ও কুকুয়া ইউনিয়নের কৃষ্ণনগর গ্রামের। আর অপর দুইজন তালতলী উপজেলার। খবর পেয়ে উপজেলা প্রশাসন আক্রান্ত ব্যাক্তিদের বাড়ী লকডাউন করে দিয়েছেন। তারা বাড়ীতে আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন ।উপজেলা স্বাস্থ্যবিভাগ আক্রান্ত ব্যাক্তিদের খোজখবর নিয়ে চিকিৎসা দিচ্ছেন।

খোজ নিয়ে জানাগেছে, আক্রান্ত ব্যাক্তিদের মধ্যে এক ইউপি চেয়ারম্যান ছাড়া সকলেই সুস্থ আছেন। তারা বাড়ীতে আইসোলেশনে আছেন। ইউপি চেয়ারম্যান ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। উপজেলায় এই তৃতীয় কোন রাজনৈতিক নেতা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

আক্রান্ত ব্যাক্তিদের মধ্যে একজন বলেন, তিনি পুরোপুরি সুস্থ আছেন। তার শরীরে করোনার কোন উপসর্গ নেই। তবে তিনি বাড়ীতে আইসেলোশনে থেকেই স্বাভাবিক জীবন যাপন করছেন।

আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ডাঃ এমদাদুল হক চৌধুরী বলেন, আক্রান্ত ব্যাক্তিদের খোজ খবর নিয়ে বাড়ীর আইসোলশেন রেখেই তাদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তাদের যে কোন সমস্যায় আমরা সদা প্রস্তুত আছি।

আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা শংকর প্রসাদ অধিকারী বলেন, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত আটজনের মধ্যে সাতজনকে যথাযথ চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। আক্রান্ত ইউপি চেয়ারম্যান ঢাকায় একটি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তিনি ছাড়া সবাই তাদের বাড়ীর আইসোলেশনে আছেন। তাদের চিকিৎসায় জন্য সার্বক্ষনিক খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে।

আমতলী উপজেলা নিবার্হী অফিসার মনিরা পারভীন বলেন,আক্রান্ত ব্যাক্তিদের বাড়ী লকডাউন করা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের সার্বিক সহযোগীতা করা হচ্ছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুণ :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর :
© All rights reserved © 2020 The Daily Dipanchal
Customized By BlogTheme