1. dipanchalbarguna@gmail.com : dipanchalAd :
আগুন নেভাতে ছাত্রলীগ সভাপতির ভূমিকা প্রশংসনীয় - dipanchalnews
শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ০১:২১ পূর্বাহ্ন
শীর্ষ সংবাদ :
দক্ষিণাঞ্চলের স্বপ্নের দুয়ার খুলছে আজ হাইকোর্টে দুই মামলায় খালেদা জিয়ার স্থায়ী জামিন টাঙ্গাইলে নানা কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উদযাপিত- বরগুনায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে হজ্জ বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত মঠবাড়িয়ায় হাত-পা বেঁধে ৫ম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টা, বৃদ্ধ গ্রেপ্তার টাংগাইলে জাতীয় শিশু কিশোর ইসলামী সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান- বরগুনায় ইসলামি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দুঃস্থদের মাঝে সরকারি যাকাত ফান্ডের চেক বিতরণ জেলায় শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ নির্বাচিত মাওঃ মুহাম্মদ ইউনুস আলী বরগুনায় কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত “প্রত্যাবর্তনের চার দশক,শেখ হাসিনার বদলে দেওয়া বাংলাদেশের,অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রা”

আগুন নেভাতে ছাত্রলীগ সভাপতির ভূমিকা প্রশংসনীয়

  • আপলোডের সময় : বৃহস্পতিবার, ২১ মে, ২০২০
  • ২৩৪৯ বার নিউজটি দেখা হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার : ২১ মে, বৃহস্পতিবার বরগুনা শহরের বাকালি পট্টিতে এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ঘটে। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাটি বরগুনা শহরের মধ্যে হওয়ায় সাথে সাথে চারিদিকে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের পাশাপাশি স্থানীয় লোকজন আগুন নেভাতে এগিয়ে আসেন।  আগুনের প্রকটতা অনেক বেশি হওয়ায় অনেকেই ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়েন। এসময় শহরের কয়েকজন তরুণ এগিয়ে আসেন। নিজের জীবনকে ঝুঁকির মুখে রেখেই তারা আগুন নেভানোর কাজে ঝাঁপিয়ে পড়েন। এদের মধ্যে অন্যতম বরগুনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জুবায়ের আদনান অনিকের ভূমিকা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। ছবিতে কর্মীদের সাথে তার সংগঠনের কর্মীদের নিয়ে আগুন নেভাতে দেখা যাচ্ছে।

বরগুনা শহরে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা শুনে ছুটে আসেন বরগুনা জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি জুবায়ের আদনান অনিক। তিনি নিজের জীবনকে তুচ্ছ করে, অংশগ্রহণ করেন আগুন নেভানোর কাজে। এছাড়াও বরগুনা ছাত্রলীগকর্মী রাজিব দেবনাথ সহ আরো অনেকে আগুন নেভানোর কাজে অংশগ্রহণ করেন।

ছাত্রলীগ কর্মী  ফাহাদ হাসান তানিম বলেন, ” ইফতারের পর জুবায়ের ভাইয়ের বাসায় গিয়েছিলাম, বসার ঘরে তার জন্য অপেক্ষা করছিলাম।হঠাৎ জেলা ছাত্রলীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক সাফিন খান ভাই দৌড়ে এসে বলল গাড়ি স্টার্ট দে বাজারে আগুন লাগছে। ভাইও রুম থেকে তার পিছনেই দৌড়ে আসল।আমরা কিছু প্রশ্ন না করেই ভাইয়ের পিছনেই অন দা স্পটে পৌঁছালাম।আগুনের প্রচন্ড তাপে আমরা তেমন কাছাকাছি পৌছাতে না পারলেও অনিক ভাই নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়েও ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের সাথে আগুন নেভানো কাজে অংশ নিলো।দূর থেকে আমরা শুধু তাকিয়ে দেখলাম কতটা দুঃসাহসী হলে মানুষ এমন ঝুঁকি নিয়ে জনগণের জন্য কাজ করে।”

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুণ :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর :
© All rights reserved © 2020 The Daily Dipanchal
Customized By BlogTheme