1. dipanchalbarguna@gmail.com : dipanchalAd :
বরগুনার সাধারণ মানুষের আস্থাভাজন এসপি মারুফ হোসেন - dipanchalnews
শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ০১:১৩ পূর্বাহ্ন
শীর্ষ সংবাদ :
দক্ষিণাঞ্চলের স্বপ্নের দুয়ার খুলছে আজ হাইকোর্টে দুই মামলায় খালেদা জিয়ার স্থায়ী জামিন টাঙ্গাইলে নানা কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উদযাপিত- বরগুনায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে হজ্জ বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত মঠবাড়িয়ায় হাত-পা বেঁধে ৫ম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টা, বৃদ্ধ গ্রেপ্তার টাংগাইলে জাতীয় শিশু কিশোর ইসলামী সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান- বরগুনায় ইসলামি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দুঃস্থদের মাঝে সরকারি যাকাত ফান্ডের চেক বিতরণ জেলায় শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ নির্বাচিত মাওঃ মুহাম্মদ ইউনুস আলী বরগুনায় কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত “প্রত্যাবর্তনের চার দশক,শেখ হাসিনার বদলে দেওয়া বাংলাদেশের,অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রা”

বরগুনার সাধারণ মানুষের আস্থাভাজন এসপি মারুফ হোসেন

  • আপলোডের সময় : শনিবার, ১৬ মে, ২০২০
  • ২৪৯ বার নিউজটি দেখা হয়েছে

এম.এস রিয়াদ (সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার) : দেশ তথা রাষ্ট্রের সর্বস্তরের জনগণের নিরাপত্ত্বা, জানমালের হেফাজত, শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষা করা পুলিশ প্রশাসনের নৈতিক দায়িত্ব। আর এমন চিন্তা চেতনাকে ধারণ করেই জনবান্ধব পুলিশ প্রশাসন এবং জনগণের সাথে সেতুবন্ধন তৈরী করে মানুষের হৃদয়ে আস্থার মজবুত ভিত তৈরি করে নেওয়ার মাঝেই রয়েছে একজন পুলিশ কর্মকর্তার সফলতা। এমন কঠিন এবং চ্যালেঞ্জিং কাজটি অত্যন্ত সফলতার সাথে করতে সক্ষম হয়েছেন বরগুনার পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন (পিপিএম,বিপিএম)। স্ব-মহিমায় নিজেকে যেমন করেছেন উজ্জ্বল; ঠিক তেমনি বরগুনা বাসীকে করেছেন আলোকিত।

দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই সাফল্য, স্বচ্ছতা, নিষ্ঠা এবং দৃঢ়তার সাথে রাষ্ট্রের দেয়া অর্পিত সব ধরণের কর্ম দক্ষতার সাথে সম্পন্ন করতে তিনি ছিলেন বদ্ধপরিকর। তেমনি বরগুনা জেলায় দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে জেলার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির সার্বিক উন্নয়নের জন্য সময়োপযোগী ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন।

এসপি মারুফ হোসেন ১৯৮৮ সালে পিরোজপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি, ১৯৯০ সালে এইচএসসি এবং ১৯৯৯ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগ থেকে কৃতিত্বের সাথে অনার্স ও মাস্টার্স শেষ করেন।

২০০৩ সালের ১০ ডিসেম্বর মারুফ হোসেন ২২তম বিসিএস ক্যাডার হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে এএসপি পদে যোগদান করেন।

পুলিশ বাহিনীতে যোগদানের পরই আর পিছন ফিরে তাকাননি তিনি। নিজের কর্ম দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে সফলতার সাথে হাটছেন সম্মুখপানে।

তিনি ২০০৯ সালে লাইবেরিয়া মিশনে যোগদান করেন। ২০১১ সালে ট্রাফিক এন্ড ড্রাইভিং স্কুলের (টিডিএস) কমান্ড্যান্ট এর দায়িত্ব সফলতার সাথে পালন করেন। ২০১২ সালে সুদানের দারফুর মিশনে রুল অব ল ইউনিটের ওআইসি প্লানিংয়ের দায়িত্ব পালন করেন। সুদানের দারফুর মিশন শেষে ২০১৪ সালে এডিসি হিসেবে এসএমপি, সিলেটে যোগদান করেন এবং সেখানে অনুষ্ঠিত টি-টুয়েন্টি ক্রিকেট বিশ্বকাপে নিরাপত্তার প্লানিং-এর দায়িত্ব সফলতার সাথে পালন করেন।

এরপর ২০১৫ সালে ডিএমপি’তে বাংলাদেশ সচিবালয়ে এডিসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। সেখানে সাফল্যের সাথে দায়িত্ব পালনের পর পদোন্নতি পেয়ে ২০১৬ সালে ডিসি (এমটি ও সরবরাহ) ও ডিসি (ডিবি) হিসেবে আবারও সিএমপি’তে সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করেন। এরপর ১৩ আগষ্ট ২০১৮ থেকে বরিশাল বিভাগের বরগুনা জেলায় পুলিশ সুপারের দায়িত্ব পালন করছেন।

তিনি ১৬৪ জন মাদক সেবনকারী ও ব্যবসায়ীদের আত্মসর্ম্পণের মাধ্যমে তাদের সমাজের মূল ধারায় ফিরিয়ে আনতে রেঞ্জ ডিআইজি মহোদয়ের প্রেরণায় ‘নব দিগন্ত’ নামক রেজিস্টার্ড সমাজ সেবা সংগঠন প্রতিষ্ঠা করে ব্যপকভাবে প্রশংসায় ভূষিত হন।

বরগুনাবাসীর আস্থাভাজন পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ নির্মূলে নিষ্ঠা এবং দৃঢ়তার সাথে পালন করে আসছেন। যা বরগুনাবাসীকে স্বাচ্ছন্দময় জীবন উপহার দিতে সক্ষম হয়েছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুণ :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর :
© All rights reserved © 2020 The Daily Dipanchal
Customized By BlogTheme