1. dipanchalbarguna@gmail.com : dipanchalAd :
মানুষের জন্য কোন প্রানী খাওয়া হালাল - dipanchalnews
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৩৮ অপরাহ্ন
শীর্ষ সংবাদ :
দেড় বছর কারাগারে সাংবাদিক জামাল, অনাহারে পরিবার বরগুনা থানা পুলিশের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ অস্বীকার সরকারী নীতি নির্দেশনা বিষয়ক ২ দিনের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত বরগুনা শহরে আবারো প্রতারক চক্রের খপ্পরে ভদ্রমহিলা প্রতারক গ্রেফতার বরগুনা প্রেসক্লাবের সামনে থেকে চেতনানাশক স্প্রে দিয়ে নারীর ব্যাগ ছিনতাই বিদ্যালয় এখন প্রধান শিক্ষকের বাসভবন বরগুনার বিসিক শিল্প নগরীতে কড়া নজরদারি চায় দর্শনার্থীরা বরগুনায় ফেইসবুকে ধর্ষকের সাফাই গাইলেন জেলা ছাত্রলীগ নেতা বরিশাল রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ হওয়ায় কে.এম. তারিকুল ইসলাম কে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বরগুনা সদর থানা পুলিশ বরিশাল রেঞ্জের আবার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ কে.এম. তারিকুল ইসলাম কে সম্মাননা প্রদান

মানুষের জন্য কোন প্রানী খাওয়া হালাল

  • আপলোডের সময় : রবিবার, ৮ মার্চ, ২০২০
  • ৪২৪ বার নিউজটি দেখা হয়েছে

হাফেজ মুফতি জাহিদুল ইসলাম (বেলাল) খতিব কালেক্টরেট (ডিসি কোর্ট) জামে মসজিদ বরগুনা। মানুষ হচ্ছে সৃষ্টির সেরা জীব এই মানুষ কখনো হারাম বস্তু ভক্ষণ করতে পারবেনা বিষেশ করে মুসলমানতো কোন ধরনের হারাম খেতেই পারবেনা যেমন সূরায় আল মায়েদার ০৩ নং আয়াতে মহান আল্লাহ এরশাদ করেন। তোমাদের জন্য হারাম করা হয়েছে মৃত জন্তু [১], রক্ত [২], শূকরের গোস্ত [৩], আল্লাহ ছাড়া অন্যের নামে যবেহ করা পশু [৪], গলা চিপে মারা যাওয়া জন্তু [৫], প্রহারে মারা যাওয়া জন্তু [৬], উপর থেকে পড়ে মারা যাওয়া জন্তু [৭], অন্য প্রাণীর শিং এর আঘাতে মারা যাওয়া জন্তু [৮] এবং হিংস্র পশুতে খাওয়া জন্তু [৯]; তবে যা তোমরা যবেহ করতে পেরেছ তা ছাড়া [১০], আর যা মূর্তি পূজার বেদীর উপর বলী দেয়া হয় তা [১১] এবং জুয়ার তীর দিয়ে ভাগ্য নির্ণয় করা [১২], এসব পাপ কাজ। আজ কাফেররা তোমাদের দ্বীনের বিরুদ্ধাচরণে হতাশ হয়েছে [১৩]; কাজেই তাদেরকে ভয় করো না এবং আমাকেই ভয় কর। আজ আমি তোমাদের জন্য তোমাদের দ্বীনকে পরিপূর্ণ করলাম এবং তোমাদের উপর আমার নেয়ামত সম্পূর্ণ করলাম [১৪], আর তোমাদের জন্য ইসলামকে দ্বীন হিসেবে পছন্দ করলাম [১৫]। অতঃপর কেউ পাপের দিকে না ঝুঁকে ক্ষুধার তাড়নায় বাধ্য হলে তবে নিশ্চয় আল্লাহ ক্ষমাশীল, পরম দয়ালু। [১] আলোচ্য আয়াতে কয়েকটি জিনিস হারাম করার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। তন্মধ্যে প্রথম হারাম বস্তু হিসেবে বলা হয়েছে, মৃত জিনিস। এখানে ‘মৃত’ বলে ঐ জন্তু বুঝানো হয়েছে, যা যবেহ্ ব্যতীত কোন রোগে অথবা স্বাভাবিকভাবে মরে যায়। এধরনের মৃত জন্তুর গোস্ত চিকিৎসা-বিজ্ঞানের দৃষ্টিতেও মানুষের জন্যে ক্ষতিকর। তবে হাদীসে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম দুই প্রকার মৃতকে এ বিধানের বাইরে রেখেছেন, একটি মৃত মাছ ও অপরটি মৃত টিড্ডী। [মুসনাদে আহমদঃ ২/৯৭, ইবন মাজাহঃ ৩৩১৪] # নোংরা-ভোজী পশুকে সওয়ারী বানানো মাকরুহ যে হালাল পশু [উট, গরু ইত্যাদি] সাধারণত: মানুষের পায়খানা খায়, তার উপর সওয়ার হওয়া মকরুহ। এরূপ নোংরা-ভোজী উট যদি ঘাস খেতে লাগে [এবং নোংরা ভক্ষণ করা ত্যাগ করে] তাহলে তার মাংস পবিত্র হবে বিধায় মকরুহ থাকবে না। ইবনে উমার রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, ‘নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম নোংরা-ভোজী উঁটনীর উপর চড়তে বারণ করেছেন।’ [আবূ দাঊদ-বিশুদ্ধ সূত্রে] প্রকাশ থাকে যে, এরূপ পশুর দুধ ও গোশত খাওয়ার ব্যাপারেও নিষেধাজ্ঞা এসেছে। আবূ দাউদ ২৫৫৭, ২৫৫৮, # বিষ্ঠা খাওয়ায় অভ্যস্ত (হালাল) পশু-পাখি খাওয়াও নিষেধ‏ ইবনে উমার (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বিষ্ঠা ভক্ষণে অভ্যস্ত পশুর গোশত খেতে ও তার দুধ পান করতে নিষেধ করেছেন তিরমিযী ১৮২৪। # নোংরাভোজী পশুকে সওয়ারী বানানো মকরূহ যে হালাল পশু (উট, গরু ইত্যাদি) সাধারণতঃ মানুষের পায়খানা খায়, তার উপর সওয়ার হওয়া মাকরূহ। এরূপ নোংরাভোজী উট যদি ঘাস খেতে লাগে (এবং নোংরা ভক্ষণ করা ত্যাগ করে) তাহলে তার মাংস পবিত্র হবে বিধায় মাকরূহ থাকবে না।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুণ :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর :
© All rights reserved © 2020 The Daily Dipanchal
Customized By BlogTheme