1. dipanchalbarguna@gmail.com : dipanchalAd :
তালতলীতে ঝুঁকিপূর্ণ সাঁকো দিয়ে পার হচ্ছে কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীরা - dipanchalnews
বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১০:৫৪ অপরাহ্ন
শীর্ষ সংবাদ :
দক্ষিণাঞ্চলের স্বপ্নের দুয়ার খুলছে আজ হাইকোর্টে দুই মামলায় খালেদা জিয়ার স্থায়ী জামিন টাঙ্গাইলে নানা কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উদযাপিত- বরগুনায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে হজ্জ বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত মঠবাড়িয়ায় হাত-পা বেঁধে ৫ম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টা, বৃদ্ধ গ্রেপ্তার টাংগাইলে জাতীয় শিশু কিশোর ইসলামী সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান- বরগুনায় ইসলামি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দুঃস্থদের মাঝে সরকারি যাকাত ফান্ডের চেক বিতরণ জেলায় শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ নির্বাচিত মাওঃ মুহাম্মদ ইউনুস আলী বরগুনায় কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত “প্রত্যাবর্তনের চার দশক,শেখ হাসিনার বদলে দেওয়া বাংলাদেশের,অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রা”

তালতলীতে ঝুঁকিপূর্ণ সাঁকো দিয়ে পার হচ্ছে কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীরা

  • আপলোডের সময় : সোমবার, ২৭ জানুয়ারী, ২০২০
  • ২৬৯ বার নিউজটি দেখা হয়েছে

মোঃ জাহিদুল ইসলাম বেলালঃ বরগুনার তালতলী উপজেলার শারিকখালী ও কড়ইবাড়ীয়া ইউনিয়নের কড়ইবাড়ীয়া বাজারের দক্ষিন পূর্ব পাশে ঝুঁকি পুর্ণ সাঁকো পার হয়ে স্কুলে যায় কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থী ও অত্র এলাকার জনসাধারন। প্রতিদিন ঐ সাঁকো থেকে শিক্ষার্থীসহ প্রায় পাঁচ থেকে আটশত লোক আসা যাওয়া করে।শিশু শিক্ষার্থীরা বাসের সাঁকো পার হতে ভয় পায়। এমনকি বাসের সাঁকো পার হয়ে স্কুলে যেতে চায়না কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীরা। বাধ্য হয়ে শিশু শিক্ষার্থীদের সাথে যেতে হয় অভিভাবকদের। জানা যায়, শারিকখালী ইউনিয়নের নলবুনিয়া গ্রামে যদিও একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। সেখানে গিয়ে লেখাপড়ার তেমন কোন ভাল যোগাযোগ ব্যবস্হা না থাকায় বাধ্য হয়ে ৪-৫ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে পাঠদানের জন্য যেতে হয় আলীর বন্দর এ,এম মাধ্যমিক বিদ্যালয়, প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কড়ইবাড়ীয়া দারুস সুন্নাত দাখিল মাদ্রাসায়। অভিভাবকরা থাকেন নানা দুচিন্তায়।যে কোন সময় ঘটে যেতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীদের দাবি এখানে যেন অতিশিঘ্রিই একটি ব্রিজ নির্মাণ করা হয়। এ বিষয়ে শিক্ষার্থীদের কাছে জানতে চাইলে তানজিলা, সুমাইয়া, মেহেদী, জান্নাতী, সালমান, রেজাউল, ঝরণা বলেন আমরা প্রতিদিন অতিকষ্টে ক্লাসে আসা-যাওয়া করি। সাঁকো যখন পার হই তখন অনেক ভয় পাই। তারা আরো বলেন বর্ষা মৌসুমে রাস্তাঘাট খারাপ থাকায় আমরা ক্লাসে যেতে পারিনা।আমাদের দাবি এখানে একটি ব্রিজ নির্মাণ করে আমাদের জনদুর্ভোগের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য অনুরোধ করছি। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কড়ইবাড়ীয়া দারুস সুন্নাত দাখিল মাদ্রাসার সুপার জনাব মো:আব্দুস সবুর বলেন এ এলাকার জনগন ইসলামী শিক্ষার প্রতি অত্যন্ত অনুরাগী। তাদের ছেলেমেয়েদেরকে মাদ্রাসায় শিক্ষা দেওয়ার জন্য ইচ্ছা পোষন করে। কিন্তু কড়ইবাড়ীয়া দারুস সুন্নাত দাখিল মাদ্রাসাটির সাথে এলাকার বিভিন্ন ব্রিজ ও পাকা রাস্তা না থাকায় এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের ইচ্ছার বাস্তবায়ন হচ্ছে না।সেহেতু রাস্তাপাকা ও ব্রিজ নির্মাণ হলে মাদ্রাসায় ছাত্রছাত্রী বৃদ্ধি ও নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত মানুষ সৃষ্টি হবে। আলীর বন্দর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জনাব আলতাফ হোসেন মোবারক( স্যার) বলেন মাধ্যমিক ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা প্রতিদিন বাসের সাঁকো পার হতে হয়। যে কোন সময় একটা দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। ওখানে একটি ভালমানের সেতু হলে শিক্ষার্থীদের আসা-যাওয়ার জন্য খুবই ভাল হয়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুণ :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর :
© All rights reserved © 2020 The Daily Dipanchal
Customized By BlogTheme